নিউজ ডেস্কঃ এজিয়ান সাগরে অবস্থিত পারোস দ্বীপের কাছে একটি অভিবাসনপ্রত্যাশী বোঝাই নৌকা উল্টে অন্তত ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গ্রিসের কোস্টগার্ডের ধারণা, নৌকাটি তুরস্ক থেকে ইতালিতে যাচ্ছিল। উল্টে যাওয়ার সময় নৌযানটিতে প্রায় ৮০ জন ছিল বলে অনুমান করা হচ্ছে। নৌকাটি কেন উল্টে গেল, তা স্পষ্ট নয়।

যাত্রীদের মধ্যে তিন নারী, এক শিশুসহ ১৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কতজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে তা জানা যায়নি। নিখোঁজদের সন্ধান ও উদ্ধারে এয়ারক্রাফট ও নৌযান মোতায়েন রয়েছে। খবর রয়টার্সের।

এ ধরনের দুর্ঘটনার জন্য মানব পাচারকারীরাই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন গ্রিসের নৌপরিবহনমন্ত্রী গায়ানিস প্লাকিওতাকিস। তিনি বলেন, ‘এ পাচারকারীরা মানুষের জীবনের ব্যাপারে উদাসীন, তারা নিরাপত্তার সাধারণ মানদণ্ড বজায় রাখে না। এমন নৌযানগুলোতে লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই ডজন ডজন মানুষকে গাদাগাদি করে রাখে।’

আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য ও অন্যত্র থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নে পৌঁছাতে অভিবাসনপ্রত্যাশীরা যে পথগুলো ব্যবহার করে থাকে, গ্রিস তার মধ্যে একটি। ২০১৫-১৬ সালের আগে এই পথে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের চাপ আরও অনেক বেশি ছিল।