নিউজ ডেস্কঃ   হিংসা, বিদ্বেষ, লোভ আর আত্মকেন্দ্রিকতা যখন মানুষকে ঘিরে ধরেছে তখন বিরল কিছু ঘটনা সবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় আমরা কতটা বদলে গেছি। মানবতা থেকে দূরে আছি কতটা। এমন সময়ে সেসব বিরল ঘটনা নতুন করে আমাদের জীবনের কথা শেখায়।

তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে ইউক্রেনে।  বাঁচাতে অগ্নিকুণ্ডে লাফ দিয়েছিল একটি কুকুর।

সম্প্রতি ইউক্রেনের ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রি কোম্পানিতে আগুন লেগেছিল। মুহূর্তের মধ্যে ভয়াবহ আগুন গ্রাস করে নেয় পুরো এলাকা। সেখানে যারা ছিলেন, সবাই নিজের প্রাণ বাঁচাতে নিরাপদ আশ্রয়ের আশায় ছোটাছুটি শুরু করেন। আর সবার মতো কোম্পানির এক কর্মীও পালাতে থাকেন ঘটনাস্থল থেকে। এসময় তার সঙ্গে ছিল পোষা কুকুর।

আচমকা ওই কর্মী খেয়াল করেন পোষা কুকুরটি তার বিপরীত দিকে দৌড়ে যাচ্ছে। প্রথমে তিনি বিষয়টি বুঝতে পারেননি। অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকেন কুকুরটির দিকে। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার শখের কুকুরটি দৃষ্টিসীমা থেকে হারিয়ে যায়। এর কিছু সময় পর তিনি দেখতে পান, আগুনের বিরুদ্ধে লড়াই করে ফিরে আসছে তার পোষা কুকুর। কিন্তু মুখে কিছু একটা কামড়ে ধরে আছে। কাছে আসার পর দেখতে পান তার মুখে ছোট্ট বিড়াল ছানাটি, যে ছিল তার খেলার সঙ্গী। তখন ওই কর্মী বুঝতে পারেন জীবনের মায়া ছেড়ে দিয়ে কেন আগুনে ঝাঁপ দিয়েছিল কুকুরটি।