editor

জুন ১৯, ২০১৯

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ব্যর্থতার দায় স্বীকার জাতিসংঘের

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ব্যর্থতার দায় স্বীকার জাতিসংঘের

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ‘পদ্ধতিগত ব্যর্থতার’ প্রমাণ খুঁজে পেয়েছে জাতিসংঘ। সংস্থা বলেছে, এই ব্যর্থতার কারণেই ২০১৭ সালে রোহিঙ্গারা দলে দলে দেশত্যাগ করতে বাধ্য হয়। গত সোমবার জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

 

মিয়ানমারে মুসলমান সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে হামলার সতর্ক বার্তা উপেক্ষা করার অভিযোগ ওঠে সে দেশে কর্মরত জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়ে মিয়ানমারে জাতিসংঘ কার্যালয়ের ভূমিকার বিষয়ে একটি অভ্যন্তরীণ মূল্যায়ন হাজির করতে গত ফেব্রুয়ারিতে আদেশ দেন বিশ্ব সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। এরপরই এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হলো।

 

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট দেশটির রাখাইন রাজ্যে কয়েকটি নিরাপত্তাচৌকিতে সন্ত্রাসী হামলার জেরে সেখানে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনী। এরপর প্রাণ বাঁচাতে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে। জাতিসংঘ রোহিঙ্গা নিপীড়নকে ‘জাতিগত নিধনের উদাহরণ’ বলেছে।

 

পদ্ধতিগত ব্যর্থতার কথা বললেও এর সঙ্গে দায়ীদের শনাক্ত করা কঠিন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। নতুন এই প্রতিবেদন বলেছে, ‘জাতিসংঘের নীতিমালা অনুযায়ী ঘৃণ্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে না নেওয়ার সঙ্গে যুক্ত সব পক্ষই যৌথভাবে দায়ী।’

 

দুই বছর আগে যখন রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংস নিপীড়নের খড়্গ নেমে আসে, তখন মিয়ানমারে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি ছিলেন রেনেটা লক ডেসালিয়ান। মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদারের লক্ষ্যে তিনি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নৃশংস নিপীড়নের বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন বলে অভিযোগ ওঠে।

 

৩৬ পৃষ্ঠার এই প্রতিবেদন প্রস্তুত করেন গুয়াতেমালার প্রখ্যাত কূটনীতিক গার্ট রোজেনথাল। প্রতিবেদনে তিনি রোহিঙ্গা নিপীড়নের বিষয়ে স্বচ্ছ ও একতাবদ্ধ কৌশলের অনুপস্থিতি এবং মাঠপর্যায়ে পদ্ধতিগত ও একতাবদ্ধ বিশ্লেষণের ত্রুটির কথা উল্লেখ করেন। রোহিঙ্গা নিপীড়ন ঠেকাতে জাতিসংঘের ব্যর্থতার কারণগুলো নিয়ে তিনি লেখেন, মিয়ানমারে রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অতি উৎসাহ একটি কারণ।

 

রোজেনথাল বলেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে তৎকালীন জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার জেইদ রা’আদ-আল হোসেন প্রায়ই সমালোচনা করতেন। এই বিষয়টি জাতিসংঘের কিছু মানুষের মধ্যে উদ্বেগের জন্ম দিয়েছিল, যারা মুখে কুলুপ আঁটা কূটনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির পক্ষে কাজ করতেন।

 

এই বিষয়ে জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিচ বলেন, মহাসচিব গুতেরেস সুপারিশগুলো গ্রহণ করেছেন এবং জাতিসংঘের কার্যপদ্ধতির উন্নতি করতে সেগুলো বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

 

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের জাতিসংঘের পরিচালক লুই চরবোনিউ বলেছেন, মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার পুরোটা দায় জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের। তাঁদের জবাবদিহির আওতায় আনা উচিত।

 


সর্বশেষ সংবাদ

শরীরের তাপ মাপবে এয়ারপডস

শরীরের তাপ মাপবে এয়ারপডস

আইটি ডেস্কঃ ওয়ারেবল ডিভাইসকে আরও উন্নত করার লক্ষ্যে কাজ করছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। প্রতিষ্ঠানটি তাদের ওয়াচে এ পর্যন্ত নানাবিদ

“গোল্ডেন এজ সেন্টার” নামে সিনিয়রস্ ক্লাবের শুভ উদ্বোধন।

“গোল্ডেন এজ সেন্টার” নামে সিনিয়রস্ ক্লাবের শুভ উদ্বোধন।

নিউজ ডেস্কঃ গত শনিবার ৯ অক্টোবর, ২০২১ সন্ধ্যা ছয়টায় টরন্টো’র ৩০০০ ড্যানফোর্থ এ্যভেনিউতে “গোল্ডেন এজ সেন্টার” নামে সিনিয়রস্ ক্লাবের শুভ

নিউইয়র্কে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নিউইয়র্ক চ্যাপ্টারের র‌্যালি: সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান

নিউইয়র্কে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নিউইয়র্ক চ্যাপ্টারের র‌্যালি: সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান

নিউজ ডেস্কঃ নিউইয়র্কে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নিউইয়র্ক চ্যাপ্টারের র‌্যালি থেকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান

আজ পর্দা উঠছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের

আজ পর্দা উঠছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের

স্পোর্টস ডেস্কঃ আজ রোববার থেকে শুরু বিশ্বকাপের ডামাডোল। বাছাই পর্ব দিয়ে আজ শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। মাসকটের আল

আলোচনায় যশ-নুসরাতের একান্ত ছবি

আলোচনায় যশ-নুসরাতের একান্ত ছবি

বিনোদন ডেস্কঃ মা হওয়ার পর থেকে কলকাতার সংসদ সদস্য-অভিনেত্রী নুসরাত জাহানকে নিয়ে যেন আলোচনা থামছেই না। সন্তান জন্মের পর ভক্তদের

​ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: কাদের

​ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ওপর হামলা বরদাস্ত করা হবে না: কাদের

নিউজ ডেস্কঃ চট্টগ্রাম, নোয়াখালীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির, বাড়িঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

তুরস্ক এখনও কাবুল বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিতে আগ্রহী

তুরস্ক এখনও কাবুল বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিতে আগ্রহী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান আবারও আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তিনি শনিবার

দীর্ঘ দেড় বছর পর ঢাবিতে সশরীরে ক্লাস শুরু

দীর্ঘ দেড় বছর পর ঢাবিতে সশরীরে ক্লাস শুরু

নিউজ ডেস্কঃ দীর্ঘ দেড় বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) সশরীরে পাঠদান কার্যক্রম আজ রবিবার (১৭ অক্টোবর) শুরু হয়েছে। এতদিন অনলাইনে