শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
‘চীনের বিরুদ্ধে’ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ব্রিটেন ও অস্ট্রেলিয়ার বিবৃতি

‘চীনের বিরুদ্ধে’ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ব্রিটেন ও অস্ট্রেলিয়ার বিবৃতি

নিউজ ডেস্ক, নিউইয়র্ক : হংকংয়ে জতীয় নিরাপত্তা আইন ভঙ্গ করায় ৫০ জন গণতন্ত্রপন্থী রাজনীতিবিদ এবং মানবাধিকার কর্মীকে গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ব্রিটেন ও অস্ট্রেলিয়া।

রবিবার দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী যৌথ এক বিবৃতিতে নিন্দা জানিয়েছে হংকংয়ের জনগণের স্বাধীনতাকে শ্রদ্ধা জানাতে চীনকে আহ্বান করেছে।

হংকংয়ে ২০২০ সালে চীনের জারি করা সুরক্ষা আইনের পর গত বুধবার হংকং পুলিশ গণহারে গ্রেফতার চালায়।

অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরিস পাইনের জারি করা যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এটা স্পষ্ট যে জাতীয় সুরক্ষা আইন ভিন্নমত এবং বিরোধী রাজনৈতিক মতামত দমাতে ব্যবহৃত হচ্ছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আমরা হংকং এবং চীনের কেন্দ্রীয় কর্তৃপক্ষকে আহ্বান করছি তারা যেন গ্রেফতার ও আটকের ভয়ভীতি ছাড়া হংকংয়ের জনগণের অধিকার ও স্বাধীনতাকে সম্মান করে।

২০১৯ সাল থেকে চীনের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন করছে হংকং। তাদের বক্তব্য, ১৯৮৪ সালের চুক্তি লঙ্ঘন করছে চীন। যুক্তরাজ্যের থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পরে হংকংয়ের দায়িত্ব নেয় চীন। কিন্তু হংকংকে বিশেষ অধিকার দেওয়া হয়। বাণিজ্য এবং গণতন্ত্রের বিষয়ে চীনের চেয়ে অনেকটাই আলাদা হংকং। পশ্চিমের সঙ্গে তাদের মুক্ত বাণিজ্যচুক্তি ছিল।

কিন্তু ২০১৯ সাল থেকে গণতন্ত্রে আঘাত হানছে চীন, এই অভিযোগে আন্দোলন শুরু করে হংকং। আন্দোলন এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে দমনমূলক নীতি গ্রহণ করে চীন। কিছুদিন আগে তারই জেরে নতুন আইন বলবৎ হয়েছে। কিন্তু কোনও আইনই হংকংয়ে বিক্ষোভ আন্দোলন বন্ধ করতে পারছে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ADVERTISEMENT




© All rights reserved © 2020 globalview24.Com
Design BY Positive IT USA
ThemesBazar-Jowfhowo