রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১০:৩২ অপরাহ্ন

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সার্ভিস চার্জ সিঙ্গেল ডিজিট করার দাবি

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সার্ভিস চার্জ সিঙ্গেল ডিজিট করার দাবি

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সার্ভিস চার্জ সিঙ্গেল ডিজিট করা এবং গ্রাহকদের অর্থের নিরাপত্তা জোরদারসহ পাঁচ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে ‘মোবাইল ব্যাংকিং এর যৌক্তিক সার্ভিস চার্জ নির্ধারণ, চার্জমুক্ত আন্তঃলেনদেন ও গ্রাহক নিরাপত্তায় করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ দাবি জানানো হয়।

 

এখাতের বাজারে প্রতিযোগিতাপূর্ণ পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে মোবাইল ফোন অপারেটরদের ন্যায় মোবাইল ব্যাংকিংয়ে এসএমপি বাস্তবায়ন, এখাতের সকল সেবার ওপর ভ্যাট ১৫ শতাংশ থেকে নামিয়ে ৫ শতাংশে নির্ধারণ এবং আন্তঃলেনদেন চার্জ মুক্ত রাখার দাবি জানানো হয়েছে।

আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিটিআরসি’র ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মিত্র বলেন, ‘নগদ সার্ভিস চার্জ কমিয়ে আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে। সার্ভিস চার্জ যে কমানো সম্ভব এতদিন বোঝা যায়নি। নগদ যেহেতু সার্ভিস চার্জ কমাতে সক্ষম হয়েছে তার মানে অন্যরাও চাইলে কমাতে পারবেন। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংকের কস্ট মডেলিং করে যৌক্তিক সার্ভিস চার্জ নির্ধারণ করা উচিত।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা নগদ’র চিফ সেলস অফিসার শেখ আমিনুর রহমান বলেন, ‘নগদ সরকারের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে লাভের কথা চিন্তা না করে জনগণের সাধ্য ও সামর্থ্যর কথা চিন্তা করে সার্ভিস চার্জ কমিয়েছে। আশা রাখি আগামীতে নগদ আরো জনবান্ধব কার্যক্রম পরিচালনা করবে।’ গ্রাহক নিরাপত্তার বিষয়ে তিনি কেন্দ্রীয় ব্যাংক, বিটিআরসি, অপারেটর ও গ্রাহককে সতর্ক ও সচেতন থাকার আহ্বান জানান।

 

লে. ক. মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, ‘এমএফএস প্রতিষ্ঠান রিটেইলার ও ডিস্ট্রিবিউটর কর্তৃক গৃহীত চার্জের সঠিক কস্ট মডেলিং জরুরি প্রয়োজন। ১.৮৫ শতাংশ সার্ভিস চার্জের বাকি ০.০১৫ টাকার কখনো কোনো হিসাব পাওয়া যায় না। এ হিসাবে অনৈতিকভাবে প্রায় ৩৫০ কোটি টাকা গ্রাহকদের কাছ থেকে নেয়া হয়েছে। যার কোনো সঠিক হিসাব কারো কাছে নাই। যতক্ষণ পর্যন্ত এই অংক কোনো বাস্তব লেনদেন সম্পন্ন ফিগারে পরিবর্তন করা না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত গ্রাহক ক্ষতিগ্রস্ত হতে থাকবে।’

অনলাইনে যুক্ত হয়ে বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. সায়মা হক বিদিশা বলেন, ‘দেশের  অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ও বাস্তবতা বিবেচনায় বর্তমান সার্ভিস চার্জ মোটেও যুক্তিসঙ্গত নয়। সার্ভিস চার্জ নির্ধারণে সকল স্টেক হোল্ডারদের মতামতের ভিত্তিতে ন্যায় সঙ্গত চার্জ নির্ধারণ করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেবে বলে আমি আশা করি।’

মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বাণিজ্যিক ব্যাংকের তুলনায় লেনদেনের হয়রানি, দীর্ঘ সময় ব্যয়, যাতায়াতের ঝামেলামুক্ত সুবিধা দিলেও এ সেবা খাতের অযৌক্তিক সার্ভিস চার্জ ও নিরাপত্তা ঝুঁকি গ্রাহকদেরকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের গাইডলাইনে সার্ভিস চার্জের ফ্লোর রেট ও সিলিং রেট নির্ধারিত না থাকায় একটি প্রতিষ্ঠান মনোপলি ব্যবসা করে আসছে। অবশেষে ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান নগদ সার্ভিস চার্জ কমিয়ে এনেছে। এতে করে গ্রাহকরা মনোপলির হাত থেকে রক্ষা পেয়ে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে বলে আমরা মনে করি।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ADVERTISEMENT




© All rights reserved © 2020 globalview24.Com
Design BY positiveitusa.com
ThemesBazar-Jowfhowo