নিজ এলাকায় ক্রিকেটার রুবেল হোসেন ঈদ উপহার দিলেন

করোনা পরিস্থিতিতে বাগেরহাটে নিজ এলাকার অসহায় মানুষদের মাঝে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করেছেন জাতীয় দলের পেসার মোঃ রুবেল হোসেন।

শনিবার দুপুরে বাগেরহাট শহরের পূর্ব বাসাবাটি এলাকার ৩ শতাধিক মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই শাড়ি ও লুঙ্গি পৌঁছে দেন তিনি। এসময় তার বড় ভাই সাগর হোসেনসহ এলাকার ভক্তরা সাথে ছিলেন। জাতীয় দলের খেপাটে এই পেসার রুবেলকে নিজ বাড়িতে দেখে এবং রুবেলের হাত থেকে উপহার পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন অনেকে।

স্থানীয় রঞ্জিত, রিনা বেগম, আবেদা বেগমসহ কয়েকজন বলেন, ছোট বেলায় রুবেলকে দেখেছি। অনেকদিন রুবেলকে দেখিনা। শুধু টিভিতে তার খেলা দেখি। যখন শুনতাম রুবেল খেলবে তখন মনের মধ্যে একটা ভালোলাগা কাজ করত। আজ অনেকদিন পর রুবেল হোসেন আমাদের বাড়িতে আসলেন। সাথে আমাদের জন্য উপহার নিয়ে এসেছেন। এতে আমরা খুব খুশি হয়েছি। আল্লাহ রুবেলকে বাঁচাইয়া রাখুক। রুবেল আরও সুনাম অর্জন করুক দোয়া করেন সকলে।

স্থানীয়দের মাঝে শাড়ি-লুঙ্গি বিতরণ শেষে রুবেল হোসেন বলেন, করোনা পরিস্থিতি মানুষের অবস্থা খুব করুণ। এই অবস্থায় তারা আয় বানিজ্য থেকে শুরু করে কিছুই করতে পারছে না। অনেক গরীব মানুষ আছেন যারা ঈদে কোনও নতুন কাপড়ও কিনতে পারবেন না। তাই মানবিক দিক দিয়ে আমি আমার এলাকার তিনশ মানুষের মাঝে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করেছি। এছাড়া অনেককে খাদ্য সামগ্রীও দেওয়া হয়েছে। আশা করি আমাকে দেখে সকল বিত্তবানরা এ ধরণের মানবিক কাজে এগিয়ে আসবেন। নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী ভবিষ্যতেও এ ধরণের সহায়তা অব্যাহত রাখার আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

এর আগে করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পরে জাতীয় দলের এই খেলোয়ার রুবেল হোসেন মানুষের শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপের জন্য বাগেরহাটে ২০টি  ইনফ্রারেড থার্মাল স্ক্যানার প্রদান করেন। নিজ বাড়িতে থাকা ভাড়াটিয়াদের ভাড়া মওকুফ, ভাড়াটিয়া ও এলাকাবাসীর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে করোনা পরিস্থিতে এলাকার মানুষের পাশে রয়েছেন জাতীয় দলের এই পেসার রুবেল হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *