নেতৃত্ব শূন্য বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ

দীর্ঘ দিন যাবত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ বালাগঞ্জ উপজেলা শাখার কোনো সাংগঠনিক কার্যক্রম চোখে পড়েনি। বালাগঞ্জে সংগঠনটির কোনো কার্যক্রম না থাকায় স্থবির হয়ে পড়েছে বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ।

 

জানা যায়, সর্বশেষ ২০০৫ সালের ২৭ এপ্রিল বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেয় সিলেট জেলা যুবলীগ। সিলেট জেলা যুবলীগের তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান মো. রফিকুল আলমকে আহবায়ক ও মো. জুনেদ মিয়াকে ১ম যুগ্ন আহবায়ক করে ৪২ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেন।

 

বেধে দেয়া হয় ৩ মাসের জন্য পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার শর্ত।

 

কিন্তু ৩ মাস পেরিয়ে প্রায় ১৬ বছর হয়ে গেলেও আজো পূর্ণাঙ্গ হয়নি গঠিত এই আহবায়ক কমিটি।

 

এদিকে, যুবলীগের পাঠ চুকিয়ে বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মো. রফিকুল আলম ও যুগ্ন আহবায়ক জুনেদ মিয়া সহ আরো একাধিক যুবনেতা এখন বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সর্বশেষ গঠিত কমিটিতে যোগদান করেছেন। যার ফলে এখন বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ নেতৃত্ব শূণ্য।

 

ছাত্রলীগের পাঠ চুকিয়ে যুবলীগের কমিটির অপেক্ষায় বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এক সময়ের তুখোড় ছাত্রনেতা তুহিন মনসুর। তিনি বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আসন্ন কমিটির সভাপতি পদ প্রত্যাশী। তিনি বলেন, বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগকে শক্তিশালী করতে হলে ও যুবলীগের কর্মীদের সক্রিয় করতে হলে এই মূহুর্তে উপজেলা যুবলীগের কমিটি প্রয়োজন। নব গঠিত সিলেট জেলা যুবলীগের কমিটির কাছে দাবী করছি শিঘ্রই বালাগঞ্জ উপজেলায় যুবলীগের কমিটি গঠন করে যুবলীগকে শক্তিশালী করার জন্য।

বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এক সময়ের তুখোড় ছাত্রনেতা আমির আলী। তিনিও বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আসন্ন কমিটির সভাপতি প্রার্থী। তিনি বলেন, অভিবক্ত বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির সদস্য ছিলাম আমি। বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর বিভক্ত হওয়ার পর বালাগঞ্জ ছাত্রলীগের কমিটিতে প্রথমে সহ সভাপতি ও পরে এই কমিটির সভাপতি প্রবাসে চলে যাওয়ায় আমি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতি শুরু করেছিলাম। এখন যুবলীগের কমিটির অপেক্ষায় আছি। আশা করি জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ যোগ্যতার ভিত্তিতে বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের কমিটি গঠন করবেন।

 

বালাগঞ্জ যুবলীগের সভাপতি পদপ্রত্যাশী আজিজুল বাশির বলেন, আমি সর্বশেষ গঠিত বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ছিলাম। আগামী কমিটিতে আমি সভাপতি পদ প্রত্যাশী। বাদ বাকী আল্লাহ’র ইচ্ছা।

 

এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ দুটি পদে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুসাইন আহমদ, যুবনেতা আব্দুল কাইয়ুম দুলাল, বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাবেক সিনিঃ যুগ্ন আহবায়ক জুনেদ মিয়ার ছোট ভাই মুহিত মিয়া, সাবেক ছাত্রনেতা নয়ন তালুকদার, সাবেক ছাত্রনেতা এস এম লিটন ও মজনু মিয়ার নাম বাতাশে বয়ে বেড়াচ্ছে।

 

বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদ প্রত্যাশী নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলে জানা যায়, উপজেলা যুবলীগের কমিটি না আসায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ ঘোষিত বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না।

 

তাই নতুন কমিটি গঠন হলে প্রাণচাঞ্চল্য হবে বালাগঞ্জ যুবলীগ, ফিরে আসবে পুরনো দিনের জৌলুস।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *